Print

পিকনিক ভেসে গেল বিষাদে

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ২০.০৪.২০১৬

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার পিয়ারাপুর আইজিএম স্কুল অ্যান্ড কলেজ। আজ বুধবার প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীদের পিকনিকে যাওয়ার নির্ধারিত দিন।

সকাল থেকেই তাই প্রাঙ্গণজুড়ে উৎসাহ-উদ্দীপনা নিয়ে শিক্ষার্থীদের ছোটাছুটি ছিল। হঠাৎ একটি ঘটনা আনন্দকে বিষাদে পরিণত করে দিল।

পিকনিকে যাওয়ার জন্য বাসের ছাদে উঠেছিল সপ্তম শ্রেণির ছাত্র রাজীব হোসেন চপল (১৫) নামের এক শিক্ষার্থী। আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাসটি প্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটক পার হওয়ার সময় ফটকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে নিহত হয় চপল।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, পিয়ারাপুর আইজিএম স্কুল অ্যান্ড কলেজ কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের নিয়ে রংপুরের তাজহাটে পিকনিকে যাওয়ার আয়োজন করে। সকালে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা পিকনিকের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার জন্য স্কুল চত্বরের ভেতরে রাখা ৩২ সিটের একটি বাসে ওঠেন। এ সময় কয়েকজন শিক্ষার্থী বাসের ছাদে উঠে পড়ে। বাসটি স্কুল থেকে বের হওয়ার সময় স্কুলের প্রধান ফটকের সঙ্গে হঠাৎ করে ধাক্কা লেগে মাথায় আঘাত পায় চপল। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় চপলের।

এদিকে চপলের অভিভাবকদের অভিযোগ, স্কুল কর্তৃপক্ষের দায়িত্বহীনতা ও অবহেলার কারণে এ ঘটনা ঘটেছে। কারণ, পিকনিকে যাওয়ার জন্য শিক্ষার্থীদের কাছে ২০০ টাকা চাঁদা নিলেও স্কুল কর্তৃপক্ষ শুধু ৩২ সিটের একটি বাস ভাড়া করে। অথচ স্কুলের শিক্ষকই রয়েছেন ২২ জন। ফলে শিক্ষার্থীরা বাসের ভেতরে জায়গা না পেয়ে ছাদের ওপর উঠতে বাধ্য হয়।

ঘটনার পর অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজন বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠলে পিয়ারাপুর আইজিএম স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষক-কর্মচারীরা পালিয়ে যান। ফলে প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ কে এম আনারুল ইসলাম ফারুকসহ অন্য শিক্ষকদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাঁদের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোজাম্মেল হক জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। নিহতের লাশ উদ্ধারের প্রক্রিয়া চলছে।