মুদ্রণ

পানি সংকটে পড়েছে মধ্যপ্রাচ্য
আন্তর্জাতিক ডেস্ক  | তারিখঃ  ২৭.০৮.২০১৫

ওয়াশিংটন ডিসিভিত্তিক বেসরকারি সংস্থা ওয়ার্ল্ড রিসোর্স ইনস্টিটিউটর (ডব্লিউআরআই) নতুন এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

এই অঞ্চলের ৩৩টি দেশের অন্তত অর্ধেক ২০৪০ সাল নাগাদ খরায় আক্রান্ত হবে। বিশ্বব্যাপী ১৬৭টি দেশের ভূগর্ভস্থ পানি, জলাশয় ও আবহাওয়ার ওপর গবেষণা চালিয়ে প্রতিবেদনটি প্রস্তুত করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ডব্লিউআরআই। প্রতিবেদনে বলা হয়, ২৫ বছরের মধ্যে ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডসহ মধ্যপ্রাচ্যের ১৩টি দেশ মারাত্মক পানি সংকটে পড়বে। এর মধ্যে সাতটি দেশ খরায় শীর্ষ দশে থাকবে। এগুলো হলো- বাহরাইন, কুয়েত, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড, কাতার, সংযুক্ত আরব আমিরাত, সৌদি আরব ও ওমান। প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়েছে, অনেক দেশেই খরার কারণে ফসল উৎপাদন বন্ধ হয়ে যাবে। সৌদি আরবকে ২০১৬ সাল থেকেই আমদানি খাদ্যশস্যের ওপর সিংহভাগ নির্ভর করতে হবে। পানি সংকটের কারণে সিরিয়া, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড, ইরাক ও বাকি খরাপ্রবণ এলাকাগুলোয় সংঘাত আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে ডব্লিউআরআইর প্রতিবেদনে