Print

আলাপুরে বিয়ে বাড়িতে যুবতীকে যৌন হয়রানি

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ১৯.০৩.২০১৬

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার আলাপুর গ্রামে বিয়ে বাড়িতে ইভটিজিং করাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে ৩০ জন আহত হয়েছে।

গুরুতর আহত অবস্থায় ২০জনকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, সদর উপজেলার আলাপুর গ্রামের ছাবু মিয়ার কন্যার বিয়ের অনুষ্ঠানে একই এলাকার ফরিদ মিয়ার মেয়েকে ইভটিজিং করে পার্শ¦বর্তী যাত্রাবড়বাড়ী গ্রামের আফিল উদ্দিনের ছেলে ফয়সলসহ আরো কয়েকজন। একে কেন্দ্র করে ওই এলাকার দিলোয়ারের সাথে বাকবিতন্ডা হয় পার্শ্ববর্তী যাত্রাবাড়বাড়ি গ্রামের রাসেলের। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে রাসেলের গ্রামের লোকজন আলাপুরে এসে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে হোসেন আলী (১৮), খেলু মিয়া (৩৫), সালামত উল্লাহ (৭০), আব্দুল আজিজ (৩০), জারু মিয়া (২০), রুবেল মিয়া (১৮), ফারুক মিয়া (২০), তাউছ মিয়া (২০), গউছ মিয়া (৪০), উসমান মিয়া (৩০), আজমান মিয়া (২৫), সুমন মিয়া (২৫), আব্দুল হাই (৩৫), হুসন আলী (৩০) ও দিলোয়ার মিয়া (২৫) আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়ে সদর থানার এসআই রাজ কুমারের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে।