আজ বৃহস্পতিবার, ২৯ জুন, ২০১৭

সদ্য প্রাপ্তঃ

*** প্রখ্যাত নজরুল সঙ্গীতশিল্পী ওস্তাদ সুধীন দাস আর নেই * ঢাকার দোহারে মৈনটঘাটে ঘুরতে এসে পদ্মায় তিনজন নিখোঁজ * ছয় মুসলিম দেশের ওপর যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা আংশিক বহাল রাখছেন দেশটির সুপ্রিম কোর্ট **

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

অবৈধ বিলবোর্ডে সৌন্দর্য হারাচ্ছে সিলেট; বাড়ছে ঝুঁকি

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | ০৫.০৪.২০১৬

অবৈধ বিলবোর্ডের নগরী সিলেট। এতে একদিকে নগরী যেমন সৌন্দর্য হারাচ্ছে অন্যদিকে বাড়ছে ঝুঁকি।

তবে অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদে কর্তৃপক্ষ নির্বিকার। আর বৈধ যে কয়টি বিলবোর্ড রয়েছে সেগুলো নিয়মের মধ্যে গড়ে ওঠেনি। এসবের অধিকাংশই হাইভোল্টেজ বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের খুবই কাছাকাছি। এতে উদ্বিগ্ন বিদ্যুৎ বিভাগ।

কোন ধরণের অনুমতি ছাড়াই সিলেট নগরীর মদিনা মার্কেটে সুনামগঞ্জ সড়কে বিশাল বিলবোর্ড তৈরি হয়েছে। শহরে এতো বড় স্থাপনা কে-বা কারা নির্মাণ করেছে সেটাও নাকি জানেনা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এভাবে গোটা শহরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে শত শত অবৈধ বিলবোর্ড। তার সংখ্যা কতো সেটারও কোন সঠিক তথ্য নেই সিটি করপোরেশনের হাতে। এগুলোর কোনটির মালিক সরকার দলীয় লোক আবার কোনটা স্বয়ং সিটি করপোরেশনের কাছের মানুষের। শুধু তাই নয় অবৈধ বিলবোর্ড স্থাপন করে ভাড়া দিয়েছে পুলিশও। আবার এই বিলবোর্ডগুলো গড়ে তোলা হয়েছে হাইভোল্টেজ বিদ্যুৎ লাইনের পাশে।

কয়েকমাস আগে সোবহানীঘাট এলাকায় ১১ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইনের ওপর বিলবোর্ড ভেঙ্গে পড়ে। এতে বড় ধরণের দুর্ঘটনা থেকে জানমাল রক্ষা পেলেও কয়েকদিন বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন থাকে এলাকাটি।

পিডিবি বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগ-২ নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, তাদের অনুমতি না নিয়েই সিটি করপোরেশন বিদ্যুৎ লাইনের পাশে স্থাপন করছে বিলবোর্ড।

তবে কর্তৃপক্ষের দাবি, অবৈধ বিলবোর্ড উচ্ছেদে নিয়মিতই অভিযান চলছে। আগামীতে বিদ্যুৎ বিভাগের সাথে সমন্বয় করে বিলবোর্ড বসানোর কথা জানালেন সিলেট সিটি করপোরেশন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এনামুল হাবিব।

করপোরেশনের রাজস্ব বৃদ্ধির জন্য বিলবোর্ড প্রয়োজন হলেও সেগুলো যেন পরিকল্পিত হয় এমন তাগিদ দিলেন অধ্যাপক শাবিপ্রবি ও নগর পরিকল্পনাবিদ প্রকৌশলী ড. জহির আলম।

সিলেটে সিটি করপোরেশনের অনুমোদিত বিলবোর্ডের সংখ্যা মাত্র ২শ’১টি।