Print

সুনামগঞ্জে পানিতে নেমে ফেরেননি দুজন

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ০১.০৫.২০১৬

সুনামগঞ্জের শহর ও তাহিরপুর উপজেলায় গোসলে নেমে ও বিলে মাছ ধরতে গিয়ে দুজন নিখোঁজ হয়েছেন। 

গতকাল শনিবার বিকেল ও দিবাগত রাতে ওই দুজন নিখোঁজ হন। খোঁজ নিয়ে জানা যায়, তাহিরপুরের উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের মার্টিয়ান হাওরের বনুয়া বিলে মাছ ধরতে গিয়ে ঝড়ের কবলে পড়ে নিখোঁজ হন তৌফিক মিয়া। তিনি ইউনিয়নের বালিয়ারগাঁও গ্রামের মো. আবদুল নূরের ছেলে।

শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে তৌফিক মিয়াসহ চারজন হ্যাজাক লাইট দিয়ে বনুয়া বিলে মাছ শিকারের জন্য যান। ঠিক ওই সময় হঠাৎ করে কালবৈশাখী শুরু হলে তাঁদের নৌকাটি ডুবে যায়। নৌকা ডুবে গেলে তৌফিকের সঙ্গে থাকা তিনজন সাঁতরে পাড়ে আসেন। তবে তৌফিক মিয়ার খোঁজ পাওয়া যায়নি। রোববার সকাল থেকে এখন পর্যন্ত তৌফিকের পরিবারের লোকজন মার্টিয়ান হাওরে তল্লাশি চালাচ্ছেন। তবে এখনো তাঁর কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-তদন্ত) মো. হানিফ বলেন, তাঁর সন্ধানে এখনো এলাকাবাসীর সহায়তায় অনুসন্ধান চলছে। এদিকে, সুনামগঞ্জ শহরের ওয়েজখালী এলাকার সুরমা নদীতে গোসল করতে গিয়ে শনিবার বিকেল ৫টার দিকে পাবেল আচার্য নামের এক ফার্মেসি কর্মচারী নিখোঁজ হন। নিখোঁজ পাবেল শহরের তেঘরিয়া এলাকার প্রয়াত গোকুল আচার্যের ছেলে।

পুলিশ জানায়, শনিবার বিকেলে ওয়েজখালী এলাকার পাশের সুরমা নদীতে গোসল করতে গিয়ে পাবেল নিখোঁজ হন। তাঁর সন্ধানে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ যৌথভাবে কাজ করছে। রোববার সকাল থেকে এখনো তাঁর কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।