Print

চার শিশু হত্যা : দ্বিতীয় দফায় অভিযোগপত্র নাকচ

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ১০.০৫.২০১৬

হবিগঞ্জের বাহুবল উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামে চার শিশু হত্যা মামলার অভিযোগপত্রে আসামিদের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ধারা সংযুক্ত করায়

দ্বিতীয়বারের মতো অভিযোগপত্র গ্রহণ করেননি আদালত। 

আজ মঙ্গলবার দুপুরে হবিগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মো. কাউছার আলম অভিযোগপত্র নাকচ করে দেন। তিনি বলেন, অভিযোগপত্রটি গ্রহণ করার এখতিয়ার তাঁর নেই।
 
এর আগে গত ২৫ এপ্রিল মামলার মূল নথি না থাকায় হবিগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম শামসাদ বেগম অভিযোগপত্র গ্রহণ করেননি।

আজ মামলার নির্ধারিত তারিখে আসামিপক্ষ জেলা জজ আদালত থেকে মামলার মূল নথি এনে জামিন আবেদন করলে বিচারক মোহাম্মদ কাউছার আলম সাত আসামির জামিন নামঞ্জুর করেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী ত্রিলোক কান্তি চৌধুরী বিজন জানান, আজ মামলার নির্ধারিত তারিখে বাহুবলের সুন্দ্রাটিকি গ্রামের চার শিশু হত্যা মামলার অভিযোগপত্রের ওপর শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। শুনানিতে বিচারক দেখতে পান, অভিযোগপত্রে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ধারা সংযুক্ত করা হয়েছে। এ অবস্থায় বিচারক বলেছেন, এ অভিযোগপত্র গ্রহণ করার এখতিয়ার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালতের। তাই তিনি অভিযোগপত্র গ্রহণ করেননি। পরে মামলার মূল নথি আবার জেলা জজ আদালতে পাঠানো হয়।
 
গত ৫ এপ্রিল হবিগঞ্জ জেলা পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুক্তাদির হোসেন চার শিশু হত্যার ঘটনায় আটজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেন। পরে ২৫ এপ্রিল সেটি আদালতে উপস্থাপন করা হয়। 

চলতি বছরের ১২ ফেব্রুয়ারি বিকেলে চার শিশু নিখোঁজ হয়েছিল। নিখোঁজের পাঁচ দিন পর বাড়ির কাছে বালুমাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থায় তাদের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।