Wednesday 26th of April 2017

সদ্য প্রাপ্তঃ

৯ জুলাই বাংলাদেশে আসছে পাকিস্তান * মুক্তিযোদ্ধারা পাচ্ছেন ৫ বছরের মাল্টিপল এন্ট্রি ভিসা * আত্মহত্যা করলেন সাবেক রঞ্জি ক্রিকেটার * পরিবর্তন আসছে কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়ায় * ৪ মে এসএসসির ফল প্রকাশ * মোহাম্মদপুরে গলিত লাশ উদ্ধার * এবার ফেসবুক লাইভে বাবার হাতে মেয়ে খুন * উপকূলে মার্কিন সাবমেরিন, লাইভ ফায়ার চালাচ্ছে উ.কোরিয়া * ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ ফাইলেরিয়া মুক্ত রাষ্ট্র হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Bangladesh Manobadhikar Foundation

Khan Air Travels

সিলেট বোর্ডে পাসের হার বাড়লেও জিপিএ-৫ কমেছে

বিডিনিউজডেস্ক ডেস্ক | তারিখঃ ১১.০৫.২০১৬

সিলেট শিক্ষা বোর্ডে এসএসসিতে এবার পাসের হার বাড়লেও কমেছে জিপিএ-৫ এর সংখ্যা।

গত বছরের তুলনায় পাসের হার বেড়েছে ২ দশমিক ৯৫ শতাংশ। গত বছর পাসের হার ছিল ৮১ দশমিক ৮২ শতাংশ। এবার তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৪ দশমিক ৭৭ শতাংশে। গতবার ২ হাজার ৪৫২ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছিল। এবার জিপিএ ৫ পেয়েছে ২ হাজার ২৬৬ জন শিক্ষার্থী।
এবারের পরীক্ষায় মানবিক, বিজ্ঞান ও ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় মোট ৮৪ হাজার ৪৪৮ জন শিক্ষার্থী অংশ নিয়েছিল। এর মধ্যে পাস করেছে ৭১ হাজার ৫৮৬ জন। প্রকাশিত ফলাফলে দেখা গেছে, মেয়েদের চেয়ে ছেলেরা এগিয়ে রয়েছে। ছেলেদের পাসের হার ৮৫ দশমিক ৭৯ শতাংশ। আর মেয়েদের পাশের হার ৮৩ দশমিক ৯৫ শতাংশ । তবে, ছেলেদের চেয়ে মেয়ে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বেশি ছিল। সব মিলিয়ে ৩৯ হাজার ২৬৮ জন মেয়ে এবং ৩২ হাজার ৩১৮ জন ছেলে পাস করেছে। মোট জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের মধ্যে এক হাজার ২২৫ জন আর মেয়ে এক হাজার ৪১ জন।বোর্ডের অধীনে চার জেলায় পাসের হার সিলেটে ৮৬ দশমিক ৩০, হবিগঞ্জে ৮৫ দশমিক ৯৯, মৌলভীবাজারে ৮২ দশমিক ৩৮ ও সুনামগঞ্জে ৮৩ দশমিক ৬০ শতাংশ।বোর্ডের মধ্যে একটি প্রতিষ্ঠানের কেউই পাস করেনি বলে জানা গেছে।
সিলেট বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. সামছুল ইসলাম প্রকাশিত ফলাফলে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেছেন, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এ ফলাফল অর্জন সম্ভব হয়েছে।জালালাবাদ ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ লে. কর্নেল ইকবালুর রহমান সৌরভ জানান, তার প্রতিষ্ঠান থেকে ১৮৮ পরীক্ষার্থী এসএসসিদে অংশ নেয়। এর মধ্যে ১৬৬ জন এ প্লাস পেয়েছে। বাকিরা এ পেয়েছে। তিনি এ ফলাফলে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।সিলেট নগরীর ব্লু বার্ড উচ্চ বিদ্যালয়ের ২৬৭ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে জিপিএ-৭ পেয়েছে ১৪৭ জন। কলেজ অধ্যক্ষ হোসনে আরা বেগম এ তথ্য জানান।