Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Bangadesh Manobadhikar Foundation


বিডিনিউজডেস্ক.কম 

তারিখঃ ১৮.০৬.২০১৫

খুশকি কী
এটা মাথার চামড়ার মৃত কোষ।



পরিসংখ্যান
খুশকি সব লিঙ্গের মানুষের ক্ষেত্রে হয়ে থাকে।
পৃথিবীর অর্ধেক প্রাপ্ত বয়স্ক মানুষের মধ্যে খুশকির প্রকোপ দেখা দেয়।
খুশকির ফলে মাথায় চুলকানি হয়ে থাকে।
খুশকির মাত্রা ঋতুভেদে পরিবর্তিত হতে পারে। শীতকালে এর মাত্রা বেড়ে যায়।

খুশকির কারণ
নানা কারণে মাথায় খুশকি হতে পারে 
শুষ্ক ত্বক।
ডার্মাটাইটিস  (সেবোরিক)।
মাথা পরিষ্কার না করলে।
চর্মরোগ যেমন সরিয়াসিস, একজিমা।
ফানগাস ইনফেকশান।

খুশকি মুক্ত থাকার উপায়
নিম পাতার রসের আছে এন্টিফাংগাস ও এন্টিবায়োটিক কার্যকারিতা। এক মুঠো নিম পাতা ৪ কাপ পানিতে দিয়ে সিদ্ধ করুন। পানি ঠাণ্ডা করুন। এটা দিয়ে চুলের গোড়ায় সপ্তাহে ২-৩ দিন লাগান।

নারিকেল তেলের মধ্যে আছে এন্টিফানগাল উপাদান। খানিক নারিকেল তেল দিয়ে এতে অর্ধেক পরিমাণ লেবুর রস মেশান। তারপর চুলের গোড়ায় লাগিয়ে ঘষুন। ২০ মিনিট পর মাথা ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে ২-৩ দিন এটি ব্যবহার করতে পারেন। 

হোয়াইট ভিনেগার। এটা ঘরে বসে খুশকি দূর করার অন্যতম কার্যকর উপায়। ভিনেগারে এসিটিক এসিড থাকে যা ফাংগাস জন্মাতে বাধা দেয় এবং চুলকানি দূর করে। ভিনেগার নিয়ে এর সঙ্গে পানি মিশাবেন। চুলে শ্যাম্পু করার পর এই মিশ্রণ মাথায় লাগান। 

মারাত্মক খুশকি দূর করতে চুলে শ্যাম্পু করার পর এলকোহল ভিত্তিক মাউথওয়াশ চুলের গোড়ায় লাগাতে পারেন।

এছাড়া লবণ মিশ্রিত পানি দিয়ে চুলের গোড়া ঘষে ব্যবহার করুন, এত খুশকি মাত্রা কমে আসবে।