মুদ্রণ

সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিষয়ে ইসির সিদ্ধান্ত ধোঁকার শামিল

বিডিনিউজিডেস্ক.কম

তারিখঃ ২৩.০৪.২০১৫

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ বলেছেন, সিটি নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের বিষয়ে ইসির সিদ্ধান্ত ধোঁকার শামিল। কারণ ঢাকা সিটিতে হবে ভোটের যুদ্ধ। কাজেই ক্যান্টনমেন্টে সেনা সদস্য রেখে সিটি নির্বাচনের সুষ্ঠুতা নিশ্চিত হতে পারে না।

বৃহস্পতিবার ২০ দল সমর্থিত মেয়র প্রার্থী মির্জা আব্বাসের বাসায় আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। তিনি ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ২০ দলের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক।

হান্নান শাহ বলেন, সরকার সিটি নির্বাচনে ভরাডুবির আশঙ্কায় বিএনপিকে নির্বাচন থেকে সরানোর পাঁয়তারা করছে।

হান্না বলেন, আমরা যেমন শতভাগ নিশ্চিত আমাদের প্রার্থীরা সিটি নির্বাচনে জয়ী হবে তেমনি সরকারও তার গোয়েন্দা সংস্থা ও নির্বাচনী মাঠ জরিপে বুঝতে পেরেছে তাদের সমর্থিত প্রার্থীদের ভরাডুবি হবে। তাই বিএনপিকে সিটি নির্বাচন থেকে সরানোর পাঁয়তারা করছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার বিষয়ে বিএনপির এই নেতা বলেন, সম্প্রতি তার (খালেদা জিয়া) গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি ও হামলা চালানোর ঘটনা পরিকল্পিত। ইচ্ছা করেই ট্রাফিক পুলিশ সিগন্যাল ফেলে সরকার সমর্থিত সন্ত্রাসীদের হামলা চালানোর সুযোগ করে দিয়েছে। তখন তারা নিরব দর্শকের ভূমিকা পালন করেছে। এমনকি এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীদের দুই একজনকে পুলিশের সঙ্গে তাল মিলাতেও দেখা গেছে।

তিনি বলেন, ২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারি দেশের মানুষ ভোট দিতে পারেনি। তাই জনগণ ২৮ এপ্রিল সিটি নির্বাচনে ভোট দিয়ে ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে হরণকৃত ভোটাধিকারের বদলা নিবে।