Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Bangadesh Manobadhikar Foundation

কওমি মাদ্রাসায় কোন জঙ্গি নেই

বিডিনিউজডেস্ক.কম

তারিখঃ ০৮.০৫.২০১৫

খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, কওমি মাদ্রাসায় কোনো জঙ্গি নেই। কওমি মাদ্রাসার বিরুদ্ধে বিভিন্নজন অভিযোগ করে বলে তারা জঙ্গি। তবে আমি মনে করি বাংলাদেশর কওমি মাদ্রাসায় কোন জঙ্গি নেই।

শুক্রবার জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে ‘বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির উদ্যোগে গণতন্ত্র ও দেশের স্থিতিশীলতা রক্ষার্থে আলেম ওলামাদের ভূমিকা শীর্ষক’ এক আলোচনা সভায় তিনি মন্তব্য করেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, তবে যারা ধরাই পড়েছে তারা অতীতে জামাত-শিবির করেছে। এরা জামাতের মজলিশে সূরার সদস্য। এরাসহ বাংলাদেশে যত গুলো জঙ্গি সংগঠন আছে এদের পৃষ্ঠপোষক হচ্ছে বিএনপি। বিএনপি গনতন্ত্রের আলখেল্লা পড়ে দেশে জঙ্গিবাদ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করতে চায়। তাদের এই আলখেল্লা ছুড়ে ফেলতে হবে।

কামরুল ইসলাম বলেন, হেফাজতে ইসলামের আজ অস্তিত্ব নেই। তাদের সৃষ্টি করেছিলো জামায়াত-বিএনপি। তারা এখন পরগাছা। পরগাছা হিসেবে কেউ ঠিকে থাকতে পারেনি। পেট্রোল বোমা নিক্ষেপ করে যারা মানুষ হত্যা করে তাদের কখনোই মানুষ ভালো বাসতে পারে না। আর জঙ্গি সংগঠনগুলোর উপদেষ্টা হলো বিএনপি। এক সময় তাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না। জনগণ প্রত্যাখ্যান করেছে।

তিনি বলেন, যারা ধর্মের নামে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করে তারা কখন ধার্মিক হতে পারে না। তারা হচ্ছে ধর্ম ব্যবসায়ী, তারা ধর্মের নামে দেশে পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে।

কামরুল বলেন, মানুষ হত্যাকারীদের বিরুদ্ধে প্রকৃত ইমানদার এবং আলেমদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি। যারা মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে তাদের প্রত্যেকের বিচার হবে। তাদের কখনোই ছাড় দেয়া হবে না।

তিনি আরো বলেন, পেট্রোল বোমা হামলাকারীদের বিরুদ্ধে বিচার ব্যবস্থায় সকল বিভাগীয় শহরে আলাদা ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হচ্ছে।

বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসাইনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন- স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক হাছান মাহমুদ এমপি প্রমুখ।