মুদ্রণ

সালাহউদ্দিনের জামিন আবেদন নাচক

বিডিনিউজডেস্ক.কম

তারিখঃ ৩০.০৫.২০১৫

ভারতে অবস্থিত বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন জামিন আবেদন নাকচ করেছে ভারতের মেঘালয় রাজ্যের একটি আদালত। সালাহউদ্দিনের বিরুদ্ধে ইন্টারপোলের রেড নোটিশ থাকায় জামিন বাতিল করা হয়।

শুনানিতে আইনজীবী এসপি মহান্ত সালাহ উদ্দিনের প্রতিপত্তি ও রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের কথা তুলে ধরেন। পাশাপাশি তার স্বাস্থ্য সমস্যার কথা উল্লেখ করে জামিন প্রার্থনা করেন।

শুনানি শেষে আদালত রায় দেওয়ার জন্য সময় নেন। জামিন নামঞ্জুরের আদেশে আদালত বলেছে, তার বিরুদ্ধে ইন্টারপোলে রেড নোটিশ থাকায় তাকে জামিন দেয়া যাচ্ছে না।

আদালত জামিনের আবেদন বাতিলের রায় ঘোষণার পর কার্যত ভেঙে পড়েন হাসিনা আহমেদ।

সালাহ উদ্দিনের আইনজীবী এসপি মোহন্ত জানান, সালাহ উদ্দিন হার্ট ও কিডনি রোগের জন্য সিঙ্গাপুরে প্রায় ২০ বছর ধরে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তাই তাকে জামিন দিয়ে সিঙ্গাপুর যাওয়ার অনুমতি দিতে আদালতে আবেদন করা হয়।

তিনি আরো জানান, আবেদনে উল্লেখ করা হয়, সালাহ উদ্দিন স্বেচ্ছায় অনুপ্রবেশ করেননি, তিনি বাংলাদেশের সম্মানিত রাজনীতিক, তাকে অপহরণ করে শিলংয়ে ফেলে যাওয়া হয়েছে।

শিলং জেলা জজ আদালতে সরকারপক্ষের আইনজীবী জ্যোতি মরকা ও কোর্ট ইন্সপেক্টর কেবি প্রসাদ জামিনের বিরোধিতা করেন। জ্যোতি মরকা আদালতে বলেন, সালাহ উদ্দিনকে যে অপহরণ করা হয়েছে, পুলিশ প্রাথমিক তদন্তে তেমনটা জানায়নি। অপহরণ না অনুপ্রবেশ, আগে সেটা প্রমাণিত হোক। আর সালাহ উদ্দিনকে শিলংয়ের নামী হাসপাতালে ডাক্তারদের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা করানো হচ্ছে। চিকিৎসায় সাড়াও মিলছে। এছাড়া ভারতের সংবিধানে অনুপ্রবেশ ধারায় আটক বিদেশীদের অন্যদেশে পাঠানোর ব্যবস্থা গ্রহণের কথা উল্লেখ নেই।

দুই পক্ষের আইনজীবীদের কথা শুনে আদালত জামিন আবেদন বাতিল করেন।