Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Bangadesh Manobadhikar Foundation

বিডিনিউজডেস্ক.কম | তারিখঃ ২৮.০১.২০১৯

প্রথম আট মিনিটে ৪০ পয়েন্ট বেড়ে যাওয়ার পর দিনের পুরো সময়টিতেই নিম্নমুখী ছিল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স।

শেষ পর্যন্ত আগের দিনের চেয়ে ১০ দশমিক ৫৬ পয়েন্ট কমে দেশের প্রধান শেয়ার সূচকটি ৫ হাজার ৯৩৯ দশমিক ৪৫-এ নেমে আসে। সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে গতকাল দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জের বেশির ভাগ মূল্যসূচক কমেছে। তবে কেনাবেচা আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে।

বাজারসংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সকালে লেনদেনের শুরুতেই চাহিদা বেশি থাকায় আর্থিক সেবাসহ বিভিন্ন খাতের শেয়ারদর বাড়ছিল। তবে মুনাফা তুলে নেয়ার একটি চাপ বাকি দিন অব্যাহত থাকায় শেষ পর্যন্ত বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারদর আগের দিনের চেয়ে কিছুটা কমেছে, যার প্রভাব দেখা গেছে মূল্যসূচকগুলোয়। ডিএসইতে দিন শেষে দাম বেড়েছে ১৬২টির, কমেছে ১৫৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ২৬টির শেয়ার দর।

ডিএসইতে শরিয়াহ সূচক সামান্য পয়েন্ট যোগ করলেও দশমিক ২৬ শতাংশ কমেছে ব্লু-চিপ সূচক ডিএস ৩০। তবে লেনদেন আগের কার্যদিবসের চেয়ে ১৫ দশমিক ৫ শতাংশ বেড়ে ১ হাজার ১৯৮ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। দেশের আরেক শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) শরিয়াহ সূচক সিএসআই ছাড়া সবক’টি সূচকই কম-বেশি পয়েন্ট হারিয়েছে। সেখানে কেনাবেচা ৩৯ কোটি থেকে ৫৩ কোটি ৬৫ লাখ টাকায় উন্নীত হয়েছে।

ডিএসইতে বড় মূলধনি খাতের মধ্যে সবচেয়ে বেশি কমেছে ব্যাংকিং খাতের বাজার মূলধন, ১ দশমিক ৭৭ শতাংশ। দর সংশোধনের তালিকায় আরো ছিল এনবিএফআই, টেলিযোগাযোগ, জীবন বীমা, সিমেন্ট, খাদ্য-আনুষঙ্গিক, সিরামিক, প্রকৌশলের মতো খাতগুলো। অন্যদিকে ইস্টার্ন হাউজিংয়ের শেয়ারের বিক্রেতা না থাকায় সেবা ও আবাসন খাতের বাজার মূলধন বেড়েছে ৩ শতাংশের বেশি। সাধারণ বীমা খাতের বাজার মূলধন বেড়েছে ৪ শতাংশের বেশি। ঊর্ধ্বমুখী তালিকায় আরো ছিল বিদ্যুৎ-জ্বালানি, ওষুধ-রসায়ন, বস্ত্র, ভ্রমণ-অবকাশ, তথ্যপ্রযুক্তি, বিবিধ ও চামড়া।

লেনদেনের ভিত্তিতে (টাকায়) ডিএসইতে সবচেয়ে এগিয়ে ছিল প্রিমিয়ার ব্যাংক, ইস্টার্ন হাউজিং, ইউনাইটেড পাওয়ার, ইউনাইটেড ফিন্যান্স, ঢাকা ব্যাংক, ওয়েস্টার্ন মেরিন, লংকাবাংলা ফিন্যান্স, সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স, বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন ও আইএফআইসি ব্যাংক।

দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল ইস্টার্ন হাউজিং, কেডিএস অ্যাকসেসরিজ, প্রাইম ইন্স্যুরেন্স, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স, ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্স, অগ্রণী ইন্স্যুরেন্স, ফেডারেল ইন্স্যুরেন্স, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্স, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স ও বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন। অন্যদিকে দর সবচেয়ে বেশি কমেছে যথাক্রমে এমারাল্ড অয়েল, বিডি অটোকারস, কে অ্যান্ড কিউ, জুট স্পিনার্স, জেএমআই সিরিঞ্জ, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকস, ইউনাইটেড ফিন্যান্স, নর্দান জুট, মেঘনা পেট ও সোনালী আঁশ শেয়ারের।