Nabodhara Real Estate Ltd.

Khan Air Travels

Bangadesh Manobadhikar Foundation

স্পোর্টস ডেস্ক | তারিখঃ ০৫.০৪.২০২১

ডাবল সেঞ্চুরির দ্বারপ্রান্তে গিয়ে পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান ফখর জামানের বিতর্কিত রান-আউট হওয়া নিয়ে তোলপাড় ক্রিকেটবিশ্ব।

দক্ষিণ আফ্রিকা-পাকিস্তান দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে কুইন্টন ডি'কক বোকা বানিয়ে রান আউট করেন জামানকে। এজন্য কুইন্টন ডি ককের সমালোচনা চলছে। বেশিরভাগ মানুষই বলছেন, এটা অক্রিকেটীয় আচরণ। তবে জামান জানিয়েছেন, পুরোটাই তার নিজের ভুল। এতে ডি'ককের কোনো দোষ নেই।

রবিবার জোহানেসবার্গে ম্যাচের শেষ ওভারে ঘটনাটি ঘটে। পাকিস্তানের জেতার জন্য শেষ ওভারে দরকার ছিল ৩১ রান। তখন ১৯৩ রানে স্ট্রাইকে ছিলেন জামান। প্রথম বলে অফের দিকে শট খেলে দুই রান নিতে চেয়েছিলেন। তিনি যখন দ্বিতীয় রান নেওয়ার জন্য আবার স্ট্রাইকে ফিরছেন, তখন ডি'কক ফিল্ডারের উদ্দেশে এমন ইঙ্গিত করেন, যাতে মনে হয় তিনি নন স্ট্রাইকার প্রান্তে বল ছুড়তে বলছেন। ডি'ককের এই ইঙ্গিত দেখে জামানও দৌড়ানোর গতি কমিয়ে দেন।

কিন্তু বাস্তবে এরপর বল আসে ডি'ককের কাছে। কিছু বোঝার আগেই তিনি অনায়াসে রান আউট করেন জামানকে। মাঠের আম্পায়াররাও জামানকে আউট দিয়ে দেন। ওয়ানডে ক্রিকেটে রান তাড়া করে সর্বোচ্চ রানের বিশ্বরেকর্ড করার পর ফিরে যেতে হয় জামানকে। এরপর স্বাভাবিক ভাবেই সবচেয়ে বেশি সমালোচনা শুরু হয় পাকিস্তানে। সেখানকার ক্রিকেটপ্রেমীদের বক্তব্য, ইচ্ছে করে এবং অন্যায় ভাবে জামানকে আউট করেছেন ডি'কক। এটা ক্রিকেটের আইন এবং স্পিরিটের বিরোধী।

তবে ফখর জামান এজন্য ডি'কককে দোষ দিতে নারাজ। তিনি বলেন, 'উল্টো দিকে থাকা হারিস রউফকে দেখতে এত ব্যস্ত ছিলাম, আর বল দেখিনি। এটা সম্পূর্ণ ভাবে আমার ভুল। আমার মনে হয়েছিল হারিস ঠিক সময়ে উইকেটে পৌঁছতে পারবে না। তাই তার দিকে তাকিয়ে ছিলাম। আমার মনে হয় না ডি'কক কোনো অন্যায় করেছে। এটা একেবারেই আমার ভুল। বাকিটা আইসিসির ম্যাচ রেফারির ব্যাপার।'