মুদ্রণ

বিডিনিউজডেস্ক.কম   
তারিখঃ ১৭.০৪.২০১৫  

কথিত ২ জিনের বাদশা বৃহস্পতিবার (১৬ এপ্রিল) গোবিন্দগঞ্জ থেকে বিরামপুরে টাকা নিতে এসে জোতবানী গ্রামবাসীর হাতে ধরা পড়েছে। লোকজন তাদের গণধোলাই দিয়ে দুপুরে থানা পুলিশে সোপর্দ করেছে।

জানা গেছে, বিরামপুরের জোতবানী গ্রামের ওবাইদুল হকের বিবাহিত কন্যার নিকট জিনের বাদশা পরিচয় দিয়ে অলৌকিক স্বপ্ন পুরণে বিভিন্ন প্রলোভন দেখানো হয়। স্বপ্ন বাস্তবায়নের খরচা বাবদ ১ লাখ ৫০ হাজার টাকা দাবি করা হয় এবং ঐ টাকা জোতবানী গ্রামের একটি বাগানে রাখতে বলা হয়। বিষয়টি নিয়ে ওবাইদুল হক গ্রামের যুব সমিতির সদস্যদের সাথে পরামর্শ করে লাল কাপড়ে কাগজ পোটলা করে বাগানে রেখে দেন। কথা মতো বৃহস্পতিবার কথিত জিনের বাদশা গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জের সাহেববাড়ি গ্রামের বাবুল মিয়ার পুত্র মিলন মিয়া (২৫) ও মোজার পুত্র শামীন (২০) ঐ স্থানে লাল কাপড়ের পোটলা নিতে গেলে ক্লাবের সদস্যরা তাদের ধরে ফেলে। এসময় তাদের সাথী একই ঠিকানার হবিবরের পুত্র ডালিম (২৭) পালিয়ে যায়। জোতবানী গ্রামবাসী আটককৃতদের গণধোলাই দিয়ে বিরামপুর থানা পুলিশে সংবাদ দেয়। থানার উপ-পরিদর্শক আল মামুন চৌধুরী তাদের আটক করে থানা হেফাজতে নিয়েছেন।